YouTube Stories Shut Down: ইউটিউব স্টোরি বন্ধ হতে চলেছে, কিন্তু কেনো?

২০১৮ সালে অফিসিয়াল ভাবে ইউটিউবে চালু হওয়া ফিচার, অবশেষে বন্ধ হচ্ছে।

YouTube Stories: Google-এর মালিকানাধীন ভিডিও-শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব, অফিসিয়াল ভাবে ঘোষণা করেছে যে তারা আগামী ২৬ জুন থেকে ইউটিউব স্টোরি (YouTube Stories) বন্ধ হয়ে যাবে। সম্প্রতি, ভারতে টিকটক নিষিদ্ধ হওয়ার পর জনপ্রিয়তা বেড়েছিল ইউটিউব স্টোরির। 

সোশাল মিডিয়া প্লাটফর্ম গুলি যেমন- ইনস্টাগ্রাম (Instagram), ফেসবুক (Facebook), হোয়াটসঅ্যাপের (Whatsapp) মত ইউটিউবেও যোগ হয়েছিল ‘স্টোরি’র ফিচার। ২০১৮ সালে অফিসিয়াল ভাবে ইউটিউবে চালু হয়েছিল এই ফিচার।

১০ হাজারের বেশি সাবস্ক্রাইবার থাকলে সেই ক্রিয়েটররা ইউটিউব স্টোরির সুবিধা পান এবং ৭ দিন পর্যন্ত এটি লাইভ থাকে। অর্থাৎ স্টোরি উপলোড করার সাত দিন পর নিজে থেকেই গায়েব হয়ে যাবে। কিন্তু এবার এই সংস্থার তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, আগামী ২৬ জুন থেকে ইউটিউবে আর স্টোরি শেয়ার করতে পারবেন না ক্রিয়েটররা।

YouTube Stories বন্ধ করার কারণ কি ?

ইউটিউব ব্যাখ্যা করেছে যে, ইউটিউব স্টোরি বন্ধ করে দেওয়ার কারণ ক্রিয়েটররা যাতে ইউটিউব শর্ট ভিডিয়ো, কমিউনিটি পোস্ট, লাইভ ভিডিয়োর মত অন্যান্য ফিচার গুলিতে বেশী ফোকাস করতে পারে। এর পাশাপাশি ইউটিউবের চিরাচরিত long form content-এর দিকে নজর দিতে চাইছে। ইতিমধ্যেই ক্রিয়েটরদের ইউটিউব স্টোরি বন্ধ হওয়ার ব্যাপারে জানানো হয়েছে। একাধিক মাধ্যম থেকে রিমাইন্ডার দেওয়া হয়েছে ক্রিয়েটরদের।

তবে এক্ষেত্রে ইউটিউব মনে করছে, YouTube Shorts হতে পারে YouTube Stories-এর আরেকটি বিকল্প। ইউটিউব শর্টস ভিডিও গুলি ইনস্টাগ্রাম রিলের মতোই ব্যবহার করতে পারে। এছাড়াও এই সংস্থা লক্ষ্য করেছে যে, স্টোরির থেকে শর্টস ভিডিও ব্যবহার করে ক্রিয়েটররা অনেক বেশি সাবস্ক্রাইবার পাচ্ছেন। উপরিউক্ত কারণের জন্য ইউটিউব স্টোরি বন্ধ হচ্ছে আগামী ২৬ জুন (YouTube will shut down YouTube Stories after June 26, 2023)।

আরো পড়ুন