লঞ্চ হল Vivo Y36, চার্জ হবে মাত্র ১৫ মিনিটে

অতিরিক্ত ২০০০ টাকার বিশেষ লঞ্চিং ডিসকাউন্ট সহ কিনে নিন Vivo-এর এই স্মার্টফোন

Vivo বৃহস্পতিবার ভারতে তার বহু প্রত্যাশিত স্মার্টফোন Vivo Y36 লঞ্চ করেছে। এটি হল একটি ৬.৬৪ ইঞ্চি LCD ডিসপ্লে, Snapdragon 680 SoC, এবং ৮জিবি র‍্যাম সহ একটি ফিচার-প্যাকড ডুয়াল-সিম স্মার্টফোন। এটি বিভিন্ন ফটোগ্রাফি মোড সহ একটি ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, ১টিবি পর্যন্ত বর্ধিত ১২৮জিবি অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ৪৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ একটি ৫০০০ mAh ব্যাটারি প্রদান করে।

Vivo Y36-এর দাম, লভ্যতা এবং ব্যাঙ্ক অফার

Vivo Y36 ৮জিবি র‍্যাম এবং ১২৮জিবি স্টোরেজ সহ একটি একক ভেরিয়েন্টে আসে এবং এর দাম ১৬,৯৯৯ টাকা। এটি দুটি রঙে পাওয়া যায়, যেমন মেটেওর ব্ল্যাক এবং ভাইব্রেন্ট গোল্ড। গ্রাহকরা ফোনটি ভিভো ইন্ডিয়ার E-store, ফ্লিপকার্ট এবং বিভিন্ন পার্টনার রিটেল স্টোর থেকে কিনতে পারবেন।

যারা ফ্লিপকার্ট থেকে কিনছেন তারা HDFC ব্যাঙ্কের ডেবিট কার্ড ব্যবহার করলে বা ইএমআই-এ কিনলে ১৫০০ টাকার ক্যাশব্যাক পেয়ে যাবেন। এছাড়াও, গ্রাহকরা অতিরিক্ত ৫০০ টাকা ছাড় উপভোগ করতে পারেন SBI কার্ডের মাধ্যমে ইএমআই লেনদেন বেছে নিলে।

Vivo Y36-এর স্পেসিফিকেশন

Vivo Y36 হল একটি ডুয়াল-সিম স্মার্টফোন (ন্যানো) যেটি Funtouch OS 13 দ্বারা চালিত, যা Android 13-এর উপর ভিত্তি করে তৈরি। এটিতে ১০৮০ x ২৩৮৮ পিক্সেলের একটি ফুল HD+ রেজোলিউশন সহ একটি ৬.৬৪ ইঞ্চি LCD ডিসপ্লে রয়েছে। এছাড়াও ডিসপ্লেটি একটি 90Hz রিফ্রেশ রেট এবং একটি 240Hz টাচ স্যাম্পলিং রেট অফার করে। সামনের দিকের ক্যামেরাটিকে মানানসই দেখানোর জন্য ফোনটির মাঝামাঝি একটি খাঁজ রয়েছে।

Vivo Y36 একটি 6nm প্রক্রিয়ায় নির্মিত একটি অক্টা-কোর স্ন্যাপড্রাগন 680 SoC চিপসেট দিয়ে সজ্জিত। উন্নত কর্মক্ষমতার জন্য এটি ৮জিবি র‍্যাম এবং একটি অতিরিক্ত ৮জিবি বর্ধিত র‍্যাম সহ আসে। Vivo Y36-এ ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এটি একটি f/1.8 লেন্স সহ একটি ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারী সেন্সর এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল বোকেহ লেন্স নিয়ে গঠিত। সামনে, f/2.0 অ্যাপারচার সহ একটি ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরা সেটআপ সুপার নাইট মোড, মাল্টি স্টাইল পোর্ট্রেট এবং বোকেহ ফ্লেয়ার পোর্ট্রেট সহ বিভিন্ন ফটোগ্রাফি মোড সাপোর্টেড।

Vivo Y36 ১২৮জিবি অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ প্রদান করে, যা একটি ডেডিকেটেড স্লটে একটি মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে ১টিবি পর্যন্ত এক্সপ্যান্ড করা যেতে পারে। কানেক্টিভিটির মধ্যে Wi-Fi, Bluetooth 5, GPS/A-GPS এবং একটি USB Type-C পোর্ট রয়েছে। ফোনটি বিভিন্ন সেন্সর যেমন অ্যাক্সিলোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, প্রক্সিমিটি সেন্সর, ই-কম্পাস এবং জাইরোস্কোপ দিয়ে সজ্জিত।

এছাড়াও, এটি আনলক করার জন্য একটি সাইড-মাউন্ট করা ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের ফিচার্সসহ আসে। Vivo Y36-তে ৪৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ একটি ৫,০০০ mAh ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। প্রপ্রাইটারি ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির মাধ্যমে মাত্র ১৫ মিনিটে ব্যাটারিটি শূন্য থেকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ হতে সক্ষম।