Heat It : মশার কামড় থেকে নিমেষেই পাবেন রেহাই, ব্যবহার করুন এই অভিনব USB Type-C Dongle

Kamedi একটি জার্মান কোম্পানি। এই কোম্পানি সম্প্রতি ‘Heat it’ নামক USB Type C dongle বাজারে লঞ্চ করেছে। তারা দাবি করছে, এই Dongle এর মাধ্যমে মশা, মাছি ইত্যাদির মত পতঙ্গের উপশম করা যাবে।

Heat It : মশা এমন এক পতঙ্গ, যা কেউই পছন্দ করে না। মশা তাড়ানোর জন্য যে সমস্ত ধুপ বা তেল ব্যবহার করা হয় সেগুলো শরীরের পক্ষে মোটেও ভালো নয়। শুধু শরীরের জন্য বলে না, পরিবেশের জন্যেও এইসব জিনিস ভালো না। তাহলে এখন উপায় কী? মশার কামড় খেয়েই কি জীবন কাটিয়ে দিতে হবে? একদম নয়। এখন চলে এসেছে নতুন ডিভাইস।

Heat It

এখন টেকনোলজি অনেক উন্নতি করেছে। এতদিন USB Type C Port-এর মাধ্যমে কেবলমাত্র ডিভাইস চার্জ দেওয়া যেত। কিন্তু এবার থেকে এই কেবল ব্যবহার করে মশার মতো পতঙ্গকে তাড়ানো যাবে। এই নতুন USB C Dongle সম্প্রতি বাজারে লঞ্চ হয়েছে। এগুলির মাধ্যমে যে কোন পোকার কামড় সহজেই উপশম করা যায়। কেবলমাত্র এই Dongle-এর হিট ব্যবহার করে আপনারা মুহূর্তেই পোকার কামড় ব্যথা আর চুলকানি থেকে মুক্তি পাবেন।

কীভাবে ব্যবহার করবেন Heat It USB Type-C Dongle?

Kamedi একটি জার্মান কোম্পানি। এই কোম্পানি সম্প্রতি ‘Heat it‘ নামক USB Type C dongle বাজারে লঞ্চ করেছে। তারা দাবি করছে, এই Dongle এর মাধ্যমে মশা, মাছি ইত্যাদির মত পতঙ্গের উপশম করা যাবে। এই ছোট গ্যাজেট আপনার ফোনের Type C Port-এ কোন অসুবিধা ছাড়াই ফিট করবে। এতে Metal Surface রয়েছে। যা Heat উৎপন্ন করে। চার্জারের মতোই এটিকে Plug-এ দিয়ে সুইচ অন করতে হবে। আর তারপর এই ডিভাইসটি নিজের কামাল দেখাবে।

শোনা যাচ্ছে, এটি Child Friendly আর Sensitive Skin Friendly। এতে 51 ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা আছে। যা এফেক্টেড অংশে প্রয়োগ করা যায়। এর মাধ্যমে পোকা কামড়ানোর ব্যথা থেকে চুলকানি সবটাই সেরে যায়। আগেকার দিনের মানুষ পোকা কামড়ালে গরম জল অথবা গরম কোন পাত্র দিয়ে সেই জায়গায় সেক করতেন। বর্তমানে এসব চলন উঠে গেছে। এই উপায় মেনেই নতুন ‘Heat It‘ বাজারে লঞ্চ হতে চলেছে। আপনারা Android আর iPhone দুটি ডিভাইসে সমানভাবে ‘Heat It‘ ব্যবহার করতে পারবেন।

আরও পড়ুন : এবার অনলাইন লটারি খেলা যাবে Virtual Reality-র সাথে, রইলো তথ্য

আমরা এই ডিভাইসটি নিজেরা ব্যবহার করে দেখিনি। বর্তমানে এটি Amazon মারফত আমেরিকা ও লন্ডনে পাওয়া যাচ্ছে। তবে এটি যদি সত্যিই কাজ করে আর এর যদি কোন সাইড এফেক্ট না থাকে, তাহলে ভবিষ্যতে এটি জনপ্রিয়তা পাবে।

আরো পড়ুন