Redmi Note 12 Turbo : সবচেয়ে সস্তা ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ হল দুর্দান্ত স্মার্টফোন

Redmi-র এই ফোন কেনার খুব ইচ্ছা কিন্তু বাজেটের বাইরে হয়ে যাচ্ছে ? চিন্তা নেই সস্তায় লঞ্চ হল নতুন ভ্যারিএন্ট

চলতি বছরের মার্চ মাসেই লঞ্চ হয়েছিল Redmi Note 12 Turbo স্মার্টফোনটি। এই প্রিমিয়াম মিড-রেঞ্জ স্মার্চফোনটি ২৫৬ জিবি, ৫১২ জিবি, এবং ১ টিবি স্টোরেজ ভ্যারিএন্টে উপলব্ধ ছিল। আর এখন ফোনটির সাশ্রয়ী মূল্যের বিকল্প হিসেবে ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভার্সন বাজারে আনল Redmi। আসুন তাহলে নতুন ভ্যারিএন্টটির দাম ও অন্যান্য বিবরণগুলি সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

Redmi Note 12 Turbo : দাম ও লভ্যতা

Redmi Note 12 Turbo -এর নতুন ভার্সন ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ সহ আনা হয়েছে এবং চীনে যার দাম রাখা হয়েছে ১,৭৯৯ ইউয়ান (প্রায় ২০,৬০০ টাকা)। এটিই নোট ১২ টার্বো-এর সবচেয়ে সস্তা মডেল। তবে, এটি শুধু চীনে উপলব্ধ এবং বিশ্ববাজারে কবে প্রবেশ করবে, সে সম্পর্কে এখনও নিশ্চিতভাবে কিছু জানা যায়নি। আসুন রেডমির এই প্রিমিয়াম মিড-রেঞ্জ ফোনটির ফিচার্সগুলি দেখে নেওয়া যায়।

Redmi Note 12 Turbo : ফিচার্স ও স্পেসিফিকেশন

Redmi Note 12 Turbo-তে ফুলএইচডি+ রেজোলিউশন সহ ৬.৬৭ ইঞ্চির ওলেড (OLED) স্ক্রিন ডিসপ্লে রয়েছে। ডিসপ্লেটিতে ১,০০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ১০০ শতাংশ ডিসিআই-পি৩ কালার গ্যামট, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ডলবি ভিশন এবং এইচডিআর১০+ সাপোর্ট করে। পারফরম্যান্সের জন্য, এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭ প্লাস জেন ২ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি ১৬ জিবি পর্যন্ত LPDDR5X র‍্যাম এবং সর্বোচ্চ ১ টিবি ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ অফার করে।

হিট ডিসিপেশনের জন্য, স্মার্টফোনটিতে একটি ৩,৭২৫ মিলিমিটারের ভেপার কুলিং চেম্বার আছে। Note 12 Turbo অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক মিউ ১৪ (MIUI 14) ইউজার ইন্টারফেসে রান করে। ফটোগ্রাফির জন্য, Redmi Note 12 Turbo-এর পিছনে অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (OIS) সাপোর্ট সহ ৬৪ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, একটি ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং একটি ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স অবস্থান করছে।

সেলফির জন্য, এটিতে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। পাওয়ায় ব্যাকআপের জন্য, Redmi Note 12 Turbo-তে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে , যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এছাড়াও কানেক্টিভিটির জন্য, এই রেডমি ফোনটিতে ডুয়েল ৫জি সাপোর্ট, ওয়াই-ফাই ৬, এনএফসি, ব্লুটুথ, আইআর (IR) ব্লাস্টার এবং একটি ৩.৫ মিলিমিটারের হেডফোন জ্যাক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এছাড়াও, ২০২৩ সালে আসন্ন সমস্ত ফোনগুলির লঞ্চের আগেই বিস্তারিত তথ্য জানতে “এখানে ক্লিক করুন”

আরো পড়ুন