ADVERTISEMENT

আকর্ষণীয় ফিচার্সে লঞ্চ হচ্ছে Poco M6 Pro 5G, রইলো বিস্তারিত

দুর্দান্ত ফিচার্সের সাথে বাজার কাঁপাতে আসছে POCO-এর এই স্মার্টফোন

ADVERTISEMENT

Poco M6 Pro 5G: স্মার্টফোন ব্র্যান্ড Poco, ৫ই আগস্ট ভারতে তাদের বহু প্রতীক্ষিত M সিরিজের ফোন লঞ্চ করার ঘোষণা করেছে। কোম্পানি ৫ই আগস্ট দুপুর ১২ টায় Poco M6 Pro 5G ফোনটি উন্মোচন করবে। স্মার্টফোনটি ভারতে ফ্লিপকার্টের মাধ্যমে পাওয়া যাবে। ই-কমার্স ওয়েবসাইটটি Poco M6 Pro 5G-এর একটি প্রোডাক্ট-পেজও তৈরি করেছে।

ADVERTISEMENT

পোকো ইন্ডিয়া টুইট করেছে, “POCOM6PRO5G-এর সাথে স্পিডভার্স আনলিশ করুন যা আপনাকে সমস্ত সীমার বাইরে নিয়ে যায়, স্পীড এবং পারফরম্যান্সের পরবর্তী স্তরের অভিজ্ঞতা প্রদান করে। ফ্লিপকার্টে ৫ই আগস্ট দুপুর ১২ টায় লঞ্চ হচ্ছে এই স্মার্টফোন,”।

Poco M6 Pro 5G স্পেসিফিকেশন

কোম্পানির তরফে প্রকাশিত ছবিগুলি থেকে, ফোনের ক্যামেরা ডিজাইনটি সম্প্রতি ভারতে প্রকাশিত Redmi 12 5G-এর মতই দেখা যাচ্ছে, যাতে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি সেন্সর, এছাড়াও সেলফির জন্য একটি ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে। সম্ভবত Poco M6 Pro 5G রেডমির তুলনামূলক স্পেসিফিকেশনের সাথেই ভারতের বাজারে আসতে পারে, যার মধ্যে একটি ৬.৭৯-ইঞ্চি FHD+ 90Hz LCD স্ক্রিন, Snapdragon 4 Gen 2 SoC, ধুলো এবং স্প্ল্যাশ প্রতিরোধের জন্য IP53 রেটিং এবং একটি ৫,০০০ mAh ব্যাটারি রয়েছে।

Poco M6 Pro 5G কালার ও স্টোরেজ অপশন

স্মার্টফোনটি একটি সিগনেচার পোকো ইয়েলো রঙ সহ আরও রঙের বিকল্পের সাথে বাজারে আসার প্রত্যাশা রয়েছে। প্রত্যাশিত কনফিগারেশনের মধ্যে রয়েছে ৮ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ, আরও বাজেট-ফ্রেন্ডলি ভেরিয়েন্টের সাথে আসার সম্ভাবনাও রয়েছে।

আরও জানিয়ে রাখি, Poco সম্প্রতি ভারতে তার প্রথম ওয়্যারলেস ইয়ারবাড লঞ্চ করেছে যার নাম, Poco Pods। এই ইয়ারবাডের দাম ২,৯৯৯ টাকা। Poco Pods চার্জিং কেস সহ ৩০ ঘন্টা ব্যাটারি লাইফের সাথে আসে এবং ডিভাইসটি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য স্ট্যান্ডার্ড SBC ব্লুটুথ কোডেক দিয়ে সজ্জিত। অন্যদিকে অ্যাপেল আইফোন ব্যবহারকারীরাও ব্লুটুথ-এর মাধ্যমে ইয়ারবাডটি কানেক্ট করতে পারবেন। 

Poco Pods-এ ১০ মিটার ওয়ারলেস পরিসীমা আছে বলে দাবি করা হয়েছে সংস্থার তরফে। চার্জিং ফ্রন্টে, ইয়ারবাডগুলি সম্পূর্ণরূপে চার্জ হতে ১.৫ ঘন্টা পর্যন্ত সময় নেয়। কেসটিতে ইউএসবি-সি পোর্ট আছে নাকি মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট আছে তা এখনও জানা যায়নি।

আরো পড়ুন