৫ দিনের ব্যাটারির সাথে লঞ্চ হল Boat Wave Fury, ডিজাইন হুবহু অ্যাপেল ওয়াচের মতো

আপনি যদি একটি সুন্দর ডিজাইন ও আকর্ষণীয় ফিচার্সের সাথে একটি স্মার্টওয়াচ কেনার কথা ভাবছেন তাহলে এটি অবশ্যই আপনার পছন্দ হতে পারে

Boat Wave Fury স্মার্টওয়াচ লঞ্চ হল ভারতে, যা দেখতে হুবহু অ্যাপেল ওয়াচের মতো। এছাড়াও উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে খুবই সাশ্রয়ী মূল্যে এই স্মার্টওয়াচটি বাজারে লঞ্চ করা হয়েছে বোটের তরফে। ডিভাইসটিতে ১.৮৩ ইঞ্চি এইচডি স্ক্রীন এবং ৫০টিরও বেশি স্পোর্টস মোড দেওয়া হয়েছে। আসুন এই স্মার্টওয়াচটির সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক বিশদে।

Boat Wave Fury: ফিচার্স ও স্পেসিফিকেশন

এই ঘড়িটিতে একটি বর্গাকার ডিসপ্লে রয়েছে যা দেখতে অ্যাপেল ওয়াচের মতো। এটি একটি ১.৮৩ ইঞ্চি এইচডি স্ক্রিন সহ আসে যা ২৪০ x ২৮৪ পিক্সেল রেজোলিউশন এবং ৫৫০ নিট পিক ব্রাইটনেস প্রদান করে। নতুন স্মার্টওয়াচটি ৫০ টিরও বেশি স্পোর্টস মোড এবং হার্ট রেট ট্র্যাকিং, SpO2 ব্লাড অক্সিজেন ম্যাপিংয়ের মতো একাধিক স্বাস্থ্য-সম্পর্কিত সেন্সর সহ আসে।

এটি একটি ব্লুটুথ কলিং ঘড়ি এবং এতে উচ্চ মানের মাইক্রোফোন, ডায়াল প্যাড রয়েছে। এছাড়াও, আপনি এই ঘড়িতে ১০টি কনট্যাক্ট সংরক্ষণ করতে পারেন। এছাড়াও, এটি জল এবং ধুলো প্রতিরোধের জন্য IP67 রেটিং যুক্ত। সর্বোপরি, কোম্পানির দাবি যে স্মার্টফোনটি ৫ দিন পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ অফার করে। ব্যবহারকারীরা Boat Wave Fury স্মার্টওয়াচে মিউজিক এবং ক্যামেরা কন্ট্রোলের মতো অন্যান্য ফিচার্সগুলিও পাবেন।

Boat Wave Fury: কালার, দাম ও প্রাপ্যতা

বোট দুটি ভেরিয়েন্টে ওয়েভ ফিউরি চালু করেছে। সিলিকন স্ট্র্যাপ ভেরিয়েন্টটি অ্যাক্টিভ ব্ল্যাক, সায়ান ব্লু, চেরি ব্লসম এবং টিল গ্রিনের মতো রঙের বিকল্পগুলিতে আসে এই স্মার্টওয়াচ। অন্যদিকে, একটি মেটালিক স্ট্র্যাপ ভেরিয়েন্টও রয়েছে, যা এর অ্যাপেল ওয়াচ-এর ডিজাইনকে অনুসরন করে। স্মার্টওয়াচটি ফ্লিপকার্ট এবং বোটের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ১,২৯৯ টাকার প্রারম্ভিক মূল্যে বিক্রয়ের জন্য উপলব্ধ। এই মডেলের বিক্রি শুরু হবে ৯ জুলাই, ২০২৩ থেকে।

আরো পড়ুন