New Whatsapp Features: হোয়াটসঅ্যাপের ৭ টি ফিচার যা আপনার জানা দরকার

এ বছরের গুরুত্বপূর্ণ কিছু হোয়াটসঅ্যাপ ফিচার, দেখে নেওয়া যাক।

Whatsapp Features: বর্তমানে আমরা সকলেই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম (Social Media Platform) গুলির সাথে জরিয়ে পরেছি। অফিসিয়াল কাজ হোক বা বন্ধুদের সাথে আড্ডা আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম গুলি ব্যাবহার করে থাকি। এই প্লাটফর্ম গুলির মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ বেশ খ্যাতি অর্জন করেছে। জনপ্রিয় সোশাল মিডিয়া প্লাটফর্ম তাদের বাবহারকারিদের জন্য একের পর এক Whatsapp Features লঞ্চ করে চলেছে। ২০২৩ সাল অর্থাৎ এবছর এখনও পর্যন্ত যে হোয়াটসঅ্যাপ ফিচারগুলি চালু হয়েছে সেগুলি একনজরে দেখে নেওয়া যাক।

৭ টি Whatsapp Features গুলি কি কি?

হোয়াটসঅ্যাপ এডিট ফিচার: ইউজারদের পাঠানো ভুল মেসেজ এডিট করার জন্যে নতুন একটি অপশন চালু করেছে সংস্থা। অনেকেই আমরা মেসেজ পাঠানোর সময় বানান ভুল করে থাকি। এক্ষেত্রে মেসেজ পাঠানোর পরে এডিট করার অপশন থাকলে খুবই উপকার হবে ইউজারদের। তবে মেসেজ পাঠানোর ১৫ মিনিট পর্যন্ত এডিট করার সময় পাবেন ইউজাররা।

নাম্বারের পরিবর্তে নাম দিয়ে লগইন:  এই ফিছারের সাহায্যে নাম্বারের পরিবর্তে ইউজাররা নাম ব্যাবহার করতে পারবে। ফলে হোয়াটসঅ্যাপে বন্ধুত্ত করার জন্যে দিতে হবে নাম্বার। হোয়াটসঅ্যাপ ইউজাররা তাদের অ্যাকাউন্টে গোপনীয়তার আরেকটি স্তর যুক্ত করার সুযোগ পাবেন। এবার থেকে আপনার পরিচিত কাউকে হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত করার জন্যে নাম্বারের পরিবর্তে নাম দিলেই হবে এবং আপনার পরিচিত কাউকে খুজতে নাম্বারের পরিবর্তে নাম টাইপ করে সহজেই খুজে নেয়া যাবে।

চ্যাট লক ফিচার: আগে শুধু হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাপটি লক করে রাখা যেত। তবে এখন আপনি নির্দিষ্ট চ্যাটও লক করে রাখতে পারবেন। ব্যক্তিগত চ্যাট হোক বা গ্রুপ চ্যাট দু’ক্ষেত্রেই এই ফিচার কাজ করবে। নতুন এই চ্যাট লক ফিচারের সাহায্যে হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের প্রাইভেসি আরও ভালভাবে বজায় থাকবে। সুরক্ষিত থাকবে চ্যাট, অর্থাৎ ইউজারদের নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা সবই বাড়বে।

স্ক্রিন শেয়ারিং ফিচার: হোয়াটসঅ্যাপের এই ফিচারের সাহায্যে ইউজাররা তাদের স্ক্রিন শেয়ার করতে পারে বন্ধু বা পরিচিতদের সাথে। এই নতুন ফিচার ইউজারদের ভিডিও কল করার অভিজ্ঞতাকে বাড়িয়ে তুলবে। এছারাও গ্রুপ ভিডিয়ো কলে ফোনের স্ক্রিন থেকে বিভিন্ন ডকুমেন্ট ভিডিয়ো-সহ স্ক্রিনের সব কিছু শেয়ার করতে পারবেন WhatsApp ইউজাররা।

ভয়েস স্ট্যাটাস: হোয়াটসঅ্যাপ তাদের ইউজারের অভিজ্ঞতা বাড়াতে ভয়েস স্ট্যাটাস ফিচারটি চালু করেছে। এই ফিচারের সাহায্যে ইউজাররা তাদের গাওয়া গান, কবিতা বা মনের ভাব প্রকাশ করতে পারবে। WhatsApp Voice Status এই ফিচারে আপনি ৩০ সেকেন্ড পর্যন্ত ভয়েস রেকর্ড করতে পারবেন। এই ভয়েস রেকর্ডটি আপনি চাইলে আপনার সব পরিচিতদের দেখাতে পারেন আথবা সিঙ্গেল কাউকে বেছে নিতে পারেন।

শেয়ার করা যাবে এইচডি ফটো: হোয়াটসঅ্যাপে এতদিন স্ট্যান্ডার্ড কোয়ালিটির ফটো পাঠানোর ক্ষেত্রে কোন বিকল্প ছিল না, ফলে আমাদের ডকুমেন্ট নামক বিকল্পটি ব্যবহার করতে হতো। নতুন ফিচারে ইউজাররা HD ফটো নামক একটি বিকল্প দেখতে পাবে, তবে বিকল্পটি শুধুমাত্র হাই-কোয়ালিটির ফটোগুলির জন্য উপলব্ধ। WhatsApp-এর এই ফিচার শুধমাত্র চ্যাট বক্সে মেসেজ পাঠানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে। হাই-কোয়ালিটির ভিডিও বা স্ট্যাটাস আপডেটের সময় এই ফিচার উপলব্ধ নয়।

কল ব্যাক বাটন: বর্তমানে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য অ্যাপটি শুধুমাত্র ইউজারদের মিসড কলের নোটিফিকেশন দেখায়। কিন্তু নতুন ফিচারের সাহায্যে ব্যবহারকারীরা কলব্যাক বাটনে ক্লিক করে তাৎক্ষণিকভাবে কল রিটার্ন করতে পারবেন। এই ফিচার ভয়েস এবং ভিডিও কল উভয়ের ক্ষেত্রেই কাজ করবে। অর্থাৎ ব্যবহারকারীরা যে ধরনের কল মিস করেছে তার উপর নির্ভর করে এটি একটি রিটার্ন ভয়েস কল বা ভিডিও কলের অপশন দেখাবে।

স্ট্যাটাস আর্কাইভ: হোয়াটসঅ্যাপ Status Archive নামে একটি ফিচার লঞ্চ করেছে, যার সাহায্যে ইউজারদের তাদের আগের স্ট্যাটাস পুনরায় শেয়ার করার অপশন দেবে। এই ফিচারের সাহায্যে ব্যবসায়িক অ্যাকাউন্টগুলির বেশ সুবিধা হবে। ৩০ দিন পর্যন্ত এই স্ট্যাটাস সেভ রাখা যাবে।

আরো পড়ুন