ADVERTISEMENT

Google Pixel 7a : এই ৩টি কারনে আপনার পিক্সেল ৬এ এর পরিবর্তে ৭এ কেনা উচিত

উন্নত ক্যামেরা ও ক্যামেরা সেন্সর, অনেক বেশি স্মুথ স্ক্রীন রিফ্রেশিং রেট এবং টেনসর জি২ চিপসেট নিয়ে লঞ্চ হয়েছে Google Pixel 7a

ADVERTISEMENT

Google Pixel 7a : অনেকদিন ধরেই গুজবের মধ্যে থেকে অবশেষে সব জল্পনা কাটিয়ে চলতি মাসেই বাজারে লঞ্চ হয়েছে পিক্সেল ৭এ। এটা নিশ্চিত যে ভারত সহ বিশ্বব্যাপী অ্যান্ড্রয়েড প্রেমীরা নিঃশ্বাস চেপে রেখে Google Pixel 7a-এর জন্য অপেক্ষা করেছেন। যদি বিগত ১২ মাসে গুগল পিক্সেল ৬এ সবথেকে বেশি বিক্রিত ফোন হয়ে থাকে, তাহলে গুগল পিক্সেল ৬এ তাকেও টপকে দেবে, কারণ গুগল পিক্সেল ৭এ হচ্ছে ৬এ এরই আপগ্রেডেড ভার্সন। আজকের প্রতিবেদনে আপনাদের বলব সেই ৩টি কারণ যে কারণে আপনার অবশ্যই পিক্সেল ৬এ এর পরিবর্তে পিক্সেল ৭এ কেনা উচিত।

ADVERTISEMENT

Google Pixel 7a তে একটি 90Hz AMOLED ডিসপ্লে, একটি একেবারে নতুন ৬৪এমপি ডুয়াল-রিয়ার ক্যামেরা সিস্টেম এবং সেই ফ্ল্যাগশিপ-গ্রেড পারফরম্যান্সের জন্য টেনসর G2 চিপসেট রয়েছে। এই ৩টি প্রধান কারণ কেন আপনার Google Pixel 7a কেনা উচিত। বিশেষ করে, আপনি যদি একটি Pixel 6a ব্যবহার করেন, তাহলে এই ৩টি প্রধান বিষয় অবশ্যই জানা উচিৎ কেন আপনাকে Pixel 7a-তে আপগ্রেড করতে হবে। আসুন বিস্তারিত দেখে নেওয়া যাক,

Google Pixel 7a : ফাস্টার এবং মসৃণ স্ক্রীন

Google Pixel 7a : এই ৩টি কারনে আপনার পিক্সেল ৬এ এর পরিবর্তে ৭এ কেনা উচিত

Google Pixel 6a একটি দুর্দান্ত স্মার্টফোন। উল্লেখ্য, এই ফোন এর কারেন্ট দাম অনুযায়ী এটি একটি দুর্দান্ত স্মার্ট ফোন। যাইহোক, যদি আমি Pixel 6a-এর কোনো একটি কন্ডিশন – এর দিকে ইঙ্গিত করি তাহলে সেটা হবে এর স্ক্রিন, আরও নির্দিষ্টভাবে, স্ক্রিন রিফ্রেশ রেট এবং এটিই Pixel 7a এর সাথে পরিবর্তন করা হয়েছে।

Google Pixel 7a ফোনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফিচার্স হল হাই স্ক্রীন রিফ্রেশ রেট। পিক্সেল ৭এ-তে একটি 90Hz AMOLED স্ক্রিন দেওয়া হয়েছে যেটি স্যামসাং থেকে নেওয়া হয়েছে, এটি Google Pixel 6a এর 60Hz স্ক্রিনের তুলনায় অনেকটাই আপগ্রেডেড। Pixel 7a-তে হাই রিফ্রেশ রেট স্ক্রিনের জন্য ইউজাররা ফাস্ট, স্মুথ এবং সেনসিটিভ মোবাইল স্ক্রীন ব্যবহারের সুযোগ পাবেন।

Google Pixel 7a : ক্যামেরা এবং ক্যামেরা সেন্সর

Google Pixel 6a-তেও একটি দুর্দান্ত ক্যামেরা রয়েছে এবং এটি অবশ্যই সেই কয়েকটি মিড-রেঞ্জ ফোনের মধ্যে একটি যা হেড-টু-হেড ক্যামেরা তুলনায় প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন গুলিকে টেক্কা দেয়। যাইহোক, যখন Pixel 6a এর ক্যামেরার হার্ডওয়্যার দেখা হয়, তখন দেখা যায় ফোনের প্রাইমারী পিছনের ক্যামেরাটিতে পুরনো Sony IMX363 সেন্সর দেওয়া হয়েছে। যেখানে আমরা সবাই জানি, যে গুগল এর সফটওয়্যার জাদু শেষমেষ সবকিছুই একেবারে চমৎকার করে দেয়, সেখানে হার্ডওয়্যার আপগ্রেড হলে কী হবে? সেই জাদুই শেষমেষ Pixel 7a এর সাথে করা হয়েছে।

Google Pixel 7a তেও এর পূর্বসূরি Pixel 6a – এর মতো ডুয়াল-রিয়ার ক্যামেরা সিস্টেমের দেওয়া হয়েছে। যাইহোক, এই সময়ে পিছনের প্রাইমারী ক্যামেরাটি একটি নতুন 64MP ক্যামেরা, এবং Sony IMX787 সেন্সর দিয়ে বানানো, যেটি অবশ্যই IMX363 এর তুলনাই অনেক বেশি শক্তিশালী। এর উপরে, সেকেন্ডারি ক্যামেরাটিও আপগ্রেড করা হয়েছে কারণ ডিভাইস টিতে আল্ট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল স্ন্যাপারের জন্য Sony IMX712 সেন্সর দেওয়া হয়েছে। এবার, এই সমস্ত হার্ডওয়্যার ফ্যাসিলিটি গুলির সাথে যুক্ত হয়েছে Google এর সফ্টওয়্যার ট্রিক, সব মিলিয়ে Google Pixel 7a মোবাইল টির ক্যামেরা তার নিজের রেঞ্জের ফোন গুলির মাঝে ক্যামেরা কিং হয়ে উঠেছে।

Google Pixel 7a : Tensor G2 Chipset এর কেরামতি

Google Pixel 7a এর সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হল এর Tensor G2 চিপসেট যেটি এই ফোনকে একটি ফ্ল্যাগশিপ ফোনের তকমা দেয়। ফোনটি টেনসর G2 SoC দ্বারা চালিত, যেটি Pixel 7 Duo-কেও চালিত করে। আসলে, এই টেনসর G2 চিপসেট Pixel 7 সিরিজ থেকেই দেওয়া শুরু হয়েছে, কারণ Pixel 6 সিরিজে টেনসর চিপ ছিল, সেকারণেই Pixel 6a-এর ভিতরেও দেওয়া হয়েছে।

এখন, যারা জানেন না তাদের জন্য, টেনসর চিপ সম্পর্কে প্রধান অভিযোগগুলির মধ্যে একটি হল এটির অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়ার সমস্যা। টেনসর জি২ চিপ দিয়ে এই সমস্যাটি কিছুটা সমাধান করা গিয়েছে এবং পিক্সেল ৭ ডুও এর প্রমাণ। টেনসর জি২-এর সিপিইউ পারফরম্যান্স বাস্তবে টেনসর চিপের সাথে অনেকটাই সামঞ্জস্যপূর্ণ, কিন্তু নতুন চিপসেটে আরও ভাল জিপিইউ রয়েছে, যা আরও ভাল গেমিং পারফরম্যান্স এবং গ্রাফিক্স-সংক্রান্ত কাজগুলিতে আরও ভাল পারফরম্যান্স দিতে সক্ষম। ভুলে যাবেন না, একটি নতুন ফোন কেনার সময় আপনার ভাল ব্যাটারি ব্যাকআপের সাথে এই সমস্ত পারফরম্যান্স আপগ্রেড গুলিতেও নজর দেওয়া উচিৎ।

Google Pixel 7a কিংবা Google Pixel 6a সম্বন্ধে আরও বিস্তারিত জানতে ‘এখানে ক্লিক করুন’

আরও পড়ুন – iPhone 15 Pro : বিরাট সুখবর! আইফোন ১৫ সিরিজে থাকছে Type – C চার্জার

আরো পড়ুন